ন্যাপ্রিন এর কাজ কি। Napryn 500 খাওয়ার নিয়ম । Napryn 500 এর দাম কত

ন্যাপ্রিন এর কাজ কি। Napryn 500 খাওয়ার নিয়ম । Napryn 500 এর দাম কত


https://www.himumedical.com/2023/07/napryn-500-napryn-500-napryn-500.html

আসছালামু আলাইকুম বন্ধুরা আজকে আমি একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ ওষুধ নিয়ে আলোচনা করবো। আজকে আমি যে ওষুধটি নিয়ে আলোচনা করবো তার নাম হচ্ছে ন্যাপ্রিন এটি হেলকেয়ার ফার্মাসিটিকাল এর ন্যাপ্রোক্সেন গ্রুপের একটি ওষুধ। আর বন্ধুরা বর্তমান সময়ে আমাদের এখন কোন কিছু তথ্যের প্রয়োজন হলে সেটা গুগলে সার্চ দিয়ে দেখি। তাই আপনাদের সুবিধার্তে আমার ওয়েবসাইটে সকল প্রকার ঔষধের তথ্যঔষধের দাম এবং পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া বিস্তারিত সকল তথ্য পেয়ে যাবেন।

Napryn 500 এর কাজ কি ঃ


যেকোন ব্যাথার জন্য ন্যাপ্রিন খুবই গুরুত্বপূর্ণ । যেমন হার্ড বা মাংস পেশির যেকোন ধরণের ব্যাথার ন্যাপ্রিন গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া আঘাত জনিত ব্যাথা যেমন, দাতের ব্যাথা, কোমরের ব্যাথা, কানের ব্যাথা, মেরুদন্ডের ব্যাথা যেকোন ব্যাথাতে ঔষধটি ব্যবহার করা যায়। বিশেষ করে বাত ব্যাথার ক্ষেত্রে ঔষধটি ম্যাজিক ড্রাগ হিসেবে পরিচিত।

উপাদান ঃ

ন্যাপ্রিন” ট্যাবলেট ২৫০ মি. গ্রা.: প্রতি ট্যাবলেটে আছে ন্যাপ্রোক্সেন ইউএসপি ২৫০ মি. গ্রা.।

ন্যাপ্রিন ট্যাবলেট ৫০০ মি. গ্রা.: প্রতি ট্যাবলেটে আছে ন্যাপ্রোক্সেন ইউএসপি ৫০০ মি. গ্রা.।

ন্যাপ্রিন এসআর ট্যাবলেট ৫০০ মি. গ্রা.: প্রতি সাসটেইন্ড রিলিজ ট্যাবলেটে আছে ন্যাপ্রোক্সেন ইউএসপি ৫০০ মি. গ্রা.।

ন্যাপ্রিন জেল: প্রতি গ্রাম জেলে আছে ন্যাপ্রোক্সেন ইউএসপি ১০০ মি. গ্রা.

ন্যাপ্রিন সাসপেনশন: প্রতি ৫ মি.লি. সাসপেনশনে আছে ন্যাপ্রোক্সেন ইউএসপি ১২৫ মি. গ্রা.।

রোগ নির্দেশনা ঃ


ন্যাপ্রিন বাতজনিত অস্থিসন্ধির প্রদাহ, এনকাইলোজিং স্পন্ডিলাইটিস, অস্থিসন্ধির প্রদাহ এবং অপরিণত বাতজনিত অস্থিসন্ধির প্রদাহে নির্দেশিত। এছাড়া ন্যাপ্রিন টেন্ডোনাইটিস, বারসাইটিস, তীব্র বাত, অস্থি ও পেশী সংশ্লিষ্ট তীব্র ব্যথা এবং ডিজমেনোরিয়াতেও কার্যকর। ন্যাপরিন এসআর ট্যাবলেট স্বল্প সময়ের ব্যবহারের জন্য নয়।

Napryn 500 খাওয়ার নিয়ম ঃ

ন্যাপ্রিন ট্যাবলেট ও এসআর ট্যাবলেট মুখে খেতে হয়। ন্যাপ্রিন এসআর ট্যাবলেট ভেঙ্গে বা চিবিয়ে খাওয়া যাবে না ট্যাবলেটটি পুরোটাই একবারে খেতে হবে। 

প্রাপ্তবয়স্কদের ক্ষেত্রে 

ন্যাপ্রিন 250 মি.গ্রা বা 500 মি.গ্রা ট্যাবলেট দিনে 2 বার খেতে হয় (সকাল ও রাত্রে) । এটি খাবার 30 মি. পরে খেতে হয়।

তীব্র বাত এর ক্ষেত্রে

নির্দেশিত প্রারম্ভিক মাত্রা: ৭৫০ মি.  পরবর্তী মাত্রা: ২৫০ মি. আ. ৮ ঘন্টা অন্তর অথবা দুইটি ৫০এসআর ট্যাবলেট দিনে একবার রোগের লক্ষণ প্রশমিত না হওয়া পর্যন্ত গ্রহণ করতে হবে। সর্বোচ্চ মাত্রা ১২৫০ মি. ।

প্রতিনির্দেশনা ঃ


ন্যাপ্রোক্সেনের প্রতি অতিসংবেদনশীলদের জন্য এটি প্রযোজ্য নয়। অ্যাসপিরিন বা অন্য ব্যথানাশক ওষুধ দ্বারা যারা শ্বাসকষ্ট রাইনাইটিস এবং নাকের পলিপ জনিত সমস্যায় ভুগে থাকেন তাদের জন্য ও প্রতিনির্দেশিত। এছাড়া পরিপাকতন্ত্রের ক্ষত বা রক্তক্ষরণে আক্রান্তদের জন্য এটি প্রতিনির্দেশিত। ২ বছরের কম বয়সীদের জন্য ন্যাপ্রোক্সেন প্রতিনির্দেশিত।

সাবধানতা ঃ

পাকস্থলীর ক্ষতযুক্ত রোগীদের ক্ষেত্রে ন্যাপ্রোক্সেন ব্যবহার করা যাবে না। ন্যাপ্রোক্সেন এর প্রতি অতি সংবেদনশীল এবং যাদের এসপিরিন অথবা অন্য প্রদাহরোধী ওষুধ প্রভাবিত এলার্জি বা হাঁপানী আছে তাদের ক্ষেত্রে ন্যাপ্রোক্সেন ব্যবহার করা যাবে না।

বৃক্কের রক্ত চলাচলে অসুবিধা আছে এমন ক্ষেত্রে (এক্সট্রা সেল্যুলার ভল্যুম কমে যাওয়া, যকৃতের সিরোসিস, কনজেসটিভ হার্ট ফেইলিওর এবং বৃক্কের রোগ) সাবধানতার সাথে দিতে হবে। সাধারণত এই লক্ষণগুলি কোন কোন বয়স্কদের ক্ষেত্রে দেখা যায়।ন্যাপ্রোক্সেন এসআর ট্যাবলেট যে সকল রোগীর ক্রিয়েটিনিন ক্লিয়ারেন্স ৩০ মিলি/লি. এর কম তাদের ক্ষেত্রে দেয়া উচিত নয় ।

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া ঃ


অনেকের ক্ষেত্রে এই ওষুধরে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। যেমন বমি, পেট ব্যাথা, সামরিক রক্তক্ষরণ, ক্ষত ইত্যাদি।

অতি সংবেদনশীল এ ক্ষেত্রে  ত্বকে ফুসফুড়ি, চুলকানি, ইত্যাদি দেখা দিতে পারে। খুব কম ক্ষেত্রে এটি দেখা দেয়।

অন্যান্য পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া মধ্যে রয়েছে মাথা ঝিম ঝিম,মাথা ঘোরা, জন্ডিস ইত্যাদি।

গর্ভবস্থায় ও স্তন্যদানকালীন সময় ঃ

গর্ভবস্থায় ও স্তন্যদানকালীন সময় ন্যাপ্রোক্সেন ব্যবহার করা যাবে না। কারণ এটি এখনো পরীক্ষা মূলক ভাবে জানা যায় নি।

ওভারডোজ ঃ

অতিরিক্ত মাত্রায় ব্যবহার করলে ঝিম ঝিম ভাব, তন্দ্রাচ্ছন্নতা, পেট-বুক ব্যাথা, পেটের সমস্যা, লিভারের কার্যকারিতা পরিবর্তন ইত্যাদি বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিতে পারে।

দাম ঃ


প্রতিটি বক্সে আছে 30 টি ট্যাবলেট।
প্রতি পিসের ট্যাবলটের দাম 11.00 টাকা।

Post a Comment (0)
Previous Post Next Post